Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

যুদ্ধবিরতি না মানলে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করুন: কলম্বিয়া

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

টানা পাঁচ মাসেরও বেশি সময় ধরে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় অবিরাম হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। এতে রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই উপত্যকায় নিহত হয়েছে ৩২ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি। বর্বর এই আগ্রাসনের জেরে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে বাড়ছে ক্ষোভ। এ অবস্থায় গাজা উপত্যকায় যুদ্ধবিরতির একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে। এরপরই যুদ্ধবিরতি না মানলে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দিয়েছেন কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট গুস্তাভো পেট্রো। একই সঙ্গে তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কেও ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার আহ্বান জানান।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাতিসংঘে ভোটের মাধ্যমে প্রস্তাব পাসের পর সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফরম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে প্রেসিডেন্ট গুস্তাভো পেট্রো বলেন, অবশেষে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে পাস হয়েছে। ইসরায়েল এই যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ করলে আমি বিশ্বের দেশগুলোকে (ইসরায়েলের সঙ্গে) কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।”

এর আগে সোমবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ইসলামিক পবিত্র মাস রমজানে গাজায় যুদ্ধবিরতির দাবিতে একটি প্রস্তাব পাস করে। পবিত্র এই মাসটি মধ্যপ্রাচ্যে গত ১১ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে এবং আগামী ৯ এপ্রিল শেষ হতে পারে। কাউন্সিলের ১০ নির্বাচিত সদস্যের উপস্থাপিত এই রেজ্যুলুশনের পক্ষে ১৪টি দেশ ভোট দিয়েছে। এতে একমাত্র দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র ভোটদানে বিরত ছিল। এছাড়া প্রস্তাবটির বিপক্ষে কোনও যুক্তি উপস্থাপন বা ভেটো ক্ষমতারও প্রয়োগ করেনি পরাশক্তি এই দেশটি। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাতিসংঘের এই রেজ্যুলুশনে ‘পবিত্র রমজান মাসের জন্য সকল পক্ষকে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হয়েছে, যা পরে একটি স্থায়ী টেকসই যুদ্ধবিরতির দিকে পরিচালিত হবে।’

এই প্রস্তাবে ‘সমস্ত বন্দির অবিলম্বে এবং নিঃশর্ত মুক্তির পাশাপাশি তাদের চিকিৎসা এবং অন্যান্য মানবিক চাহিদা পূরণের জন্য মানবিক সহায়তার প্রবেশ নিশ্চিত করার’ দাবিও করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ভেটো না দেওয়ায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ এবারই প্রথমবারের মতো যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানালো। যার অর্থ যুক্তরাষ্ট্র তার আগের অবস্থানে পরিবর্তন এনেছে। যদিও হোয়াইট হাউস বলেছে, ভেটো না দেওয়া বা ভোটদান থেকে বিরত থাকার মানে এই নয় যে, যুক্তরাষ্ট্রের নীতিতে পরিবর্তন এসেছে।

তবে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু একে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বের অবস্থান থেকে সরে আসা বা প্রস্থান বলে অভিহিত করেছেন। তার কার্যালয় থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রেজ্যুলুশন পাসের অনুমতি দেওয়ার মার্কিন এই সিদ্ধান্ত ‘যুদ্ধের শুরু থেকে নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রের ধারাবাহিক অবস্থান থেকে স্পষ্ট পশ্চাদপসরণ


আরও খবর



ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে ‘প্রস্তুত’ স্পেনসহ ইউরোপের ৪ দেশ

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

ফিলিস্তিন আলাদা রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে সম্মত হয়েছে চার ইউরোপীয় দেশ স্পেন, আয়ারল্যান্ড, মাল্টা ও স্লোভেনিয়া। শুক্রবার ব্রাসেলসে ইউরোপীয় কাউন্সিলের বৈঠকের পর চার দেশের সম্মতির এ কথা জানান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ। 

পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে আলাদা ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র গঠন ফিলিস্তিনি জনগণের বহুদিনের স্বপ্ন। সাম্প্রতিক সময়ে বিষয়টি ব্যাপক আলোচনা পেয়েছে। স্পেনের প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাউন্সিলের সমাবেশের ফাঁকে আইরিশ, মাল্টিজ এবং স্লোভেনিয়ান নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর এই চুক্তি হয়েছে। তিন দেশের সঙ্গে মিলে ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার প্রথম পদক্ষেপ নিয়েছে স্পেন।

বৈঠকের পর এক যৌথ বিবৃতিতে আয়ারল্যান্ড বলেছে, দীর্ঘস্থায়ী শান্তি ও স্থিতিশীলতা অর্জনের একমাত্র উপায় হলো একটি দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধান বাস্তবায়ন করা। তবেই শান্তি ও নিরাপত্তায় বসবাস করতে পারবে ইসরায়েলি ও ফিলিস্তিনিরা। ১৯৮৮ সাল থেকে জাতিসংঘের ১৯৩টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ১৩৯টি ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দিয়েছে।


আরও খবর



কেন পর্তুগালের স্কোয়াডে নেই রোনালদো

প্রকাশিত:বুধবার ২০ মার্চ ২০24 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাতে সুইডেনের মুখোমুখি হবে পর্তুগাল। প্রীতি এই ম্যাচের জন্য ঘোষিত ২৪ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে পর্তুগাল। তবে স্কোয়াডে নেই অন্যতম বিশ্বসেরা তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এরপর থেকে তিনি বাদ পড়েছেন কিনা সে বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।

তবে শুধু রোনালদোই নন, পর্তুগালের স্কোয়াডে নেই আরও বেশ কয়েকজন তারকা ফুটবলার। সেই তালিকায় আছেন– দিয়োগো দালোত, জোয়াও কানসেলো, দানিলো পেরেইরা, ওতাভিও, রুবেন নেভেস, ভিতিনিয়া এবং জোয়াও ফেলিক্স। যদিও এর পেছনে তাদের বিশ্রাম দেওয়ার কথা জানা গেছে।

সংবাদমাধ্যম ইএসপিএন জানিয়েছে, বিশ্রাম দেওয়ার উদ্দেশ্যেই মূলত প্রীতি ম্যাচের স্কোয়াডের বাইরে রাখা হয়েছে রোনালদো, কানসেলো ও ফেলিক্সদের। একই কথা জানিয়েছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ডায়রিও এএস। তাদের দাবি– ৩৯ বছর বয়সী এই তারকা ফরোয়ার্ডকে ছেটে ফেলা হয়নি, তাকে কেবল আসন্ন প্রীতি ম্যাচ থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে এবং আগামী সপ্তাহেই ফের পর্তুগাল দলে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে তার। এর আগে রোনালদো জাতীয় দলের ৩২ সদস্যের প্রাথমিক দলে ছিলেন।

সুইডেনের বিপক্ষে ম্যাচে বিশ্রাম পাওয়ায়, রোনালদো এখন পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছেন। মঙ্গলবার সমুদ্রসৈকতে সন্তানদের হাত ধরে হাঁটার ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। পরে প্রেমিকা জর্জিনা রদ্রিগেজের সঙ্গেও ছবি দিয়েছেন রোনালদো। ছুটি শেষে তিনি জাতীয় দলের পরের প্রীতি ম্যাচের জন্য যোগ দিতে পারেন। ২৬ মার্চ আরেকটি প্রীতি ম্যাচে স্লোভেনিয়ার বিপক্ষে খেলবে পর্তুগাল। সেই ম্যাচে নিশ্চিতভাবেই বাড়তি নজর থাকবে জাতীয় দলের হয়ে রেকর্ড ১২৮ গোল করা রোনালদোর দিকে।

পর্তুগিজ সুপারস্টার সৌদি ক্লাব আল নাসরের জার্সিতেও দারুণ ছন্দে আছেন। আন্তর্জাতিক বিরতির আগে সর্বশেষ সৌদি প্রো লিগের ম্যাচেও গোল করেছেন তিনি। আল আহলির বিপক্ষে ১–০ ব্যবধানের জয়ে গোলটি এসেছে রোনালদোর কাছ থেকে। সব মিলিয়ে সৌদি প্রো লিগের এবারের মৌসুমে সর্বোচ্চ ২৩ গোল করেছেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা। সৌদি প্রো লিগে রোনালদো পরের ম্যাচ খেলবেন ৩০ মার্চ আল তাইয়ের বিপক্ষে।

রবার্তো মার্টিনেজ পর্তুগালের কোচ হয়ে আসার পর থেকে এখন পর্যন্ত অপরাজিত আছেন রোনালদোরা। তার অধীনে ১০ ম্যাচের সবকটিতেই জিতেছে পর্তুগাল। যেখানে প্রতিপক্ষের জালে ৩৬ গোল দিলেও, নিজেরা হজম করেছে মাত্র দুই গোল। ওই সময়ে পর্তুগিজদের হয়ে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১০ গোল এসেছে রোনালদোর পা থেকে।


আরও খবর



ক্যাটরিনার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর থেকেই মেজাজ গরম ভিকির

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ মার্চ 20২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

দেখতে দেখতে বিয়ের দু’বছর পার করে ফেলেছেন বলিউড অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ ও অভিনেতা ভিকি কৌশল। বেশ কয়েক বছর ধরে গোপনে প্রেম করার পর ২০২১ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন তারা। বিয়ের পরে অবশ্য দুই তারকার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পাতায় চোখ রাখলেই স্পষ্ট হয়ে যায় তাদের সম্পর্কের রসায়ন। মধ্যবিত্ত পঞ্জাবি পরিবারে ছেলে ভিকি। অন্যদিকে, ক্যাটরিনা বিদেশিনি। তবে তাদের দু’জনের মধ্যে বোঝাপড়া দারুণ। কিন্তু সম্পর্কে জড়ানোর পরে একটা সময় ভিকিকে বড়ই ‘খিটখিটে’ ও ‘বদমেজাজি’ বলেই মনে হতো ক্যাটরিনার। কিন্তু কেন, ভিকি নিজেই জানালেন সেই কারণ।

সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার ‘নো ফিল্টার নেহা’ শোয়ে হাজির হয়ে এ বিষয়েই মুখ খুলেছেন ভিকি। ক্যাটরিনাকে তার কোন বিষয়টা সহ্য করতে হয়? এ প্রশ্নের উত্তরে ভিকি বলেন, সম্পর্কে জড়ানোর প্রথম দু’বছর ক্যাট নাকি তাকে শুধুই ‘খড়ুস’ বা (বদমেজাজি) বলে ডাকতেন। কিন্তু, এমন কেন মনে হতো ক্যাটরিনার? সে প্রসঙ্গে ভিকি জানান, অভিনেত্রীর নাকি তার মুখটা দেখলেই মনে হতো, তিনি রেগে আছেন। এখানেই শেষ নয়, ভিকির উপর আরও কিছু বিষয়ে বিরক্ত ক্যাটরিনা। ভিকি জানান, তার স্ত্রী ক্যাটরিনা মনে করেন- তিনি উপহার দেওয়ার ব্যাপারে একেবারেই রোম্যান্টিক নন। আর তখনই নেহা ধুপিয়া ভিকিকে প্রশ্ন করেন- তিনি স্ত্রী ক্যাটরিনার জন্য শেষ কী উপহার কিনেছেন? উত্তরে ভিকি জানান, গয়না। 

নেহার শোয়ে এসে তাদের দাম্পত্য জীবনের অনেক গোপন কথাই খোলাসা করলেন ভিকি। পাশপাশি, স্ত্রী ক্যাটরিনার মেজাজের কথাও জানালেন অভিনেতা। তবে ঝগড়াঝাঁটি যা-ই হোক না কেন, ক্ষমাটা যে ভিকিই চান, সে কথাও স্পষ্ট করলেন অভিনেতা। ইন্ডাস্ট্রির খুব অল্প সংখ্যক লোকই উপস্থিত ছিলেন ভিকি-ক্যাটের বিয়েতে। তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন নেহা ধুপিয়া। স্বাভাবিকভাবেই তার শোয়ে এসে মন খুলেই কথা বলেছেন ভিকি।


আরও খবর



৯ বছর পর চালু হচ্ছে বিমানের ঢাকা-রোম ফ্লাইট

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৯০জন দেখেছেন

Image

৯ বছর পর চালু হচ্ছে বিমানের ঢাকা-রোম ফ্লাইট। এটি হতে যাচ্ছে বিমানের ২৩তম রুট।মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যাত্রী নিয়ে ইতালির রোমের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে বিমানের প্রথম একটি ফ্লাইট। বিষয়টি গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ বিমানের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ তাহেরা খন্দকার।

লোকসানের কারণে ২০১৫ সালে এই রুটটি বন্ধ করে দেয় বিমান। এবার বেশ ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শফিউল আজিম। সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। বিমানের বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনারের মাধ্যমে রোম ফ্লাইট পরিচালিত হবে।

ইতালির রাজধানী রোমসহ মিলান, ভেনিসে বসবাস করছে কমপক্ষে ২ লাখ বাংলাদেশি, এর বাইরে বছর জুড়ে দেশটিতে যাচ্ছেন হাজারো বাংলাদেশি পর্যটক। ইতালি তো বটেই ইউরোপীয় ইউনিয়ন ভুক্ত অন্য কোনো দেশে বাংলাদেশ বিমানের সরাসরি কোনো ফ্লাইট চালু নেই। এত দিন ভরসা ছিল মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক এয়ারলাইনসগুলো। এতে করে ট্রানজিট নিয়ে ১৫-১৬ ঘণ্টা লেগে যেত ইতালি পৌঁছতে। ইতালিতে আজ দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় চালু হতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। এতে করে ৮ থেকে ১০ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা থেকে রোম যাওয়া যাবে। রোমে পৌঁছাবে স্থানীয় সময় সকাল ৯টায়। একই দিন রোম থেকে আরেকটি ফ্লাইট ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবে। রোম পর্যন্ত ইকোনমি ক্লাসে সর্বনিম্ন একমুখী ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৪ হাজার টাকা আর দ্বিমুখী ১ লাখ ৪ হাজার টাকা।

২০০৫ সালে বিমানের ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় বিমানের মোট ৩১টি রুট চালু ছিল। তখন বেশির ভাগ উড়োজাহাজ ছিল ভাড়া নেওয়া। এখন বিমানে ১৬টি বোয়িংসহ ২১টি নতুন উড়োজাহাজ রয়েছে। তাই আস্তে আস্তে বিমানের নতুন রুটও চালু করা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমানের পরবর্তী গন্তব্য মালদ্বীপ ও চীনের কুনমিং।

১৯৮১ সালের ২ এপ্রিল ইতালির রোমে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের প্রথম ফ্লাইট চালু হয়। নানা কারণে ২০১৫ সালের ৬ এপ্রিল তা বন্ধ হয়ে যায়।


আরও খবর



স্বাধীনতা ঘোষণার পাঠক কখনও ঘোষক হতে পারে না: সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৯জন দেখেছেন

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, স্বাধীনতা ঘোষণার পাঠক কখনও ঘোষক হতে পারে না। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) সকালে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধের শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ আমাদের দেশের স্বাধীনতার ঘোষক নিয়ে বিতর্ক হয়। এত বছর পরও সেই বিতর্ক চলছে। আমাদের বক্তব্য, ঘোষণার পাঠক ঘোষক হতে পারে না। তিনি বলেন, আবুল কাশেম, এম এ হান্নান, অনেকেই ঘোষণা পাঠ করেছেন। সেখানে জিয়াও বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণার পাঠ করেছেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, কে ঘোষক? এ বিতর্কের অবসান তখনই হবে যখন আমরা সত্যের অনুসন্ধান করতে যাব। সেটা হচ্ছে ১৯৭০ সালের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা ঘোষণার ম্যান্ডেট এই অঞ্চলের জনগণের পক্ষ থেকে একমাত্র বঙ্গবন্ধুই পেয়েছিল। আর কারো কোনো বৈধ অধিকার নেই স্বাধীনতার ঘোষক হাওয়ার।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজকে এতো বছর পর আমাদের ভাবতে হচ্ছে এ দেশেরই মানুষ, এ দেশেরই অগণতান্ত্রিক সাম্প্রদায়িক শক্তিকে নিয়ে। যারা আমাদের বিজয়, আমাদের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অন্তরায় সৃষ্টি করে যাচ্ছে। আজ আমাদের শপথ– বিএনপির নেতৃত্বে যে সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি বিজয়কে সংহতকরণে বাধা বা অন্তরায় হয়ে আছে, এই অপশক্তিকে আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরাজিত করব, প্রতিহত করব।


আরও খবর