Logo
আজঃ শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

শার্শায় সরিষায় আগ্রহ বেড়েছে চাষিদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

সরিষার মৌসুমে মাঠে মাঠে হলুদ ফুলের আনাগোনা। পৌষের ঝিরঝির হিমেল বাতাসে সেই ফুল আপন মনে দোল খাচ্ছে। ফুল ও ফুলের সুবাস মানুষকে বিমোহিত করছে। ফুলের মৌ মৌ গন্ধে মাতোয়ারা মৌমাছিও। মৌমাছি দলবেঁধে মাঠের পর মাঠ ছুটে বেড়াচ্ছে। এমন দৃশ্য যশোরের শার্শার প্রতিটি মাঠে লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, মাঠজুড়ে সরিষার চাষ হয়েছে। চাষিরা সরিষার পরিচর্যা নিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। পাকা সরিষা সংগ্রহ ও মাড়াই করে ঘরে তোলার জন্য প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। এবারও সরিষার বাম্পার ফলন হওয়ায় তাদের মুখে হাসি ফুটেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস জানায়, শার্শা উপজেলায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে উপজেলায় ৬ হাজার ৩৬৬ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হয়েছিল। চলতি বছর তা বেড়ে ৭ হাজার ১৫৬ হেক্টর হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সরিষার জাত হচ্ছে বারি ১৪, ১৭, ১৮ এবং বিনা ৪, ৯ ও ১০।

কৃষি বিভাগ বলছে, উপজেলার মাটি সরিষা চাষের উপযোগী। অনুকূল পরিবেশে এখানে কৃষকদের সময়োপযোগী উৎসাহ ও পরামর্শ দেওয়া হয়। এমনকি কৃষকদের মাঝে সময়মতো সরকারি প্রণোদনার বীজ, সার দেওয়ায় সরিষা চাষ বাড়ছে।

কুমরী গ্রামের জসিম উদ্দিন বলেন, ‘গেল বছর ২ বিঘা জমিতে সরিষা চাষ করে ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় এ বছর ৪ বিঘা জমিতে চাষ করেছি।’

কায়বা রুদ্রপুর গ্রামের চাষি নাজিমুদ্দিন জনি বলেন, ‘বরাবরই আমি মৌসুমে সরিষা চাষ করি। প্রতিবার ভালো ফলন ও দাম পেয়ে অনেক লাভবান আমি।’

ডিহি ইউনিয়নের দরিদূর্গাপুর গ্রামের ইমান, শালকোনার রফিকুল ও ইয়াছিনসহ বেশ কয়েকজন জানান, কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী ১৬ অক্টোবর থেকে নভেম্বরের শেষ পর্যন্ত সরিষা চাষ করা যায়। সে অনুযায়ী কৃষকেরা উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। সরিষা চাষে সেচ ও রাসায়নিক সার কম দরকার হওয়ায় খরচও কম। এছাড়া সরিষার পাতা জমিতে পড়ে সবুজ সার তৈরি হয়, যা বোরো চাষে জৈব সারের চাহিদা মেটায়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দীপক কুমার সাহা বলেন, ‘সরিষার আবাদ বৃদ্ধি করতে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এ বছর উপজেলার ৫ হাজার ৫০০ কৃষকের মধ্যে বিঘাপ্রতি প্রণোদনার ১ কেজি সরিষার বীজ ও ২০ কেজি সার বিতরণ করা হয়েছে। এ বছর বৃষ্টিপাত কম হওয়ায় জমিতে দ্রুত জো এসেছে। আশা করি চাষিরা গত বছরের তুলনায় বেশি ফলন ও দাম পাবেন।’


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শত্রুতা করে রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব চায় না বাংলাদেশ: সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫১জন দেখেছেন

Image

সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শত্রুতা করে বা সম্পর্ক নষ্ট করে রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে চায় না বাংলাদেশ। ভিন্ন কৌশলে রূপপুরের জন্য বেশ কিছু জিনিস আনা হয়েছে, যাতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শত্রুতা না হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কথা বেশি না বলে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে রাতারাতি বাজার নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। বিশ্ব পরিস্থিতির ওপর অনেক কিছু নির্ভর করে। সেতুমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি কখন কি হয় বলা যায় না। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে কী হবে সেটি বোঝা যাচ্ছে না। সবকিছু মিলে ২০২৪ সালে কী রেজাল্ট হচ্ছে তা বলা যাচ্ছে না।

মেট্রোরেলের চাহিদা ও ভিড় বেড়েছে— এ বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, মেট্রো তো বাংলাদেশ রেলওয়ে না যে যখন-তখন বগি বাড়াবে। এটা তো একটা প্রযুক্তিগত বিষয়। পৃথিবীর কোথাও ৫ থেকে ৬টির বেশি বগি মেট্রোরেলে নেই। তবে চাহিদা যেহেতু বেড়েছে ১০ মিনিট থেকে ৮ মিনিট পর পর মেট্রো দেওয়া যায় কিনা পরিকল্পনা চলছে।

বিএনপির ১৩ নেতা জেলে মারা গেছে, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সেটি জানা নেই। কে কখন মারা গেছে, সেই তথ্য কোথাও তার প্রমাণ দাবি করেন।  বিএনপিকে পাত্তা দিচ্ছি না এমন না। কার অবস্থা কখন কি হয় বলা যায় না।


আরও খবর



ইসরাইলি সেনারা ফিলিস্তিনি নারীদের ধর্ষণ করছে : জাতিসংঘ বিশেষজ্ঞ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২০জন দেখেছেন

Image

গাজা উপত্যকা এবং পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনি নারী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে 'জঘন্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগ' প্রশ্নে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসঙ্ঘ বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, ফিলিস্তিনি নারীদের নির্বিচারে হত্যা, আটক, ধর্ষণ বা যৌন সহিংসতার হুমকি দেয়া হচ্ছে। তারা আরো বলেন, 'এসব অভিযোগ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ও মানবিক আইরে মারাত্মক লঙ্ঘন' এবং আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আইনের আওতায জঘন্য অপরাধ-তুল্য' বিবেচিত হতে পারে, যা রোম চুক্তির অধীনে বিচারযোগ্য।

বিশেষজ্ঞরা অপরাধীদের জবাবদিহির আওতায় আনার জন্য এবং ঘটনার শিকার পরিবারগুলোর 'পূর্ণ প্রতিকার ও ন্যায়বিচার' পাওয়া নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।বিশেষজ্ঞরা গাজায় ফিলিস্তিনি নারী ও মেয়েদের নির্বিচারে হত্যার উদাহরণ উল্লেখ করে বলেন, অনেক সময় তাদের সন্তানসহ পরিবার সদস্যদের সাথে হত্যা করা হয়ে থাকে।

তারা বলেন, 'ফিলিস্তিনি নারী ও শিশুরা যখন আশ্রয় গ্রহণ করতে চায় কিংবা পালাতে থাকে, তখনো তাদেরকে টার্গেট করা বিচার-বহির্ভূতভাবে হত্যা করার খবরে আমরা শোকাভিভূত।' তিনি বলেন, 'কয়েকটি ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর বা সহযোগী বাহিনী যখন তাদেরকে হত্যা করে, তখন তাদের হাতে সাদা কাপড়ের টুকরা ছিল।'

নিরপেক্ষ বিশেষজ্ঞদের মধ্যে রয়েছেন রিম আলসালেম। তিনি নারী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে বৈষম্যবিষয়ক ওয়ার্কিং গ্রুপ নারী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে সহিংসতাবিষয়ক স্পেশাল র‌্যাপোটিয়ার। এছাড়া আছেন ফ্রানসেসকা আলবানিস। তিনি ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে মানবাধিকার পরিস্থিতিবিষয়ক স্পেশাল র‌্যাপোটিয়ার। তারা ৭ অক্টোবর থেকে গাজা ও পশ্চিম তীরে মানবাধিকার কর্মী, সাংবাদিক, মানবিক সহায়তাকর্মীসহ শত শত ফিলিস্তিনি নারী ও মেয়েকে নির্বিচারে আটকেও উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তাদের সাথে 'অমানবিক ও অমর্যাদাপূর্ণ আচরণ করা হয়, মেনস্ট্রয়েশন প্যাড, খাবার ও ওষুধ দেয়া হয় না, ভয়াবহভাবে প্রহার করা হয়।' তারা একটি উদাহরণ উল্লেখ করে বলেন যে নারী বন্দীদের খাঁচায় আটকে রেখে বৃষ্টি ও ঠান্ডার মধ্যে খাবারবিহীন ফেলে রাখা হয়েছিল।

জাতিসঙ্ঘ বিশেষজ্ঞরা নগ্ন করে প্রহার করা, পুরুষ ইসরাইলি সৈন্য দিয়ে দেহ তল্লাসী চালানোসহ ফিলিস্তিনি নারী বন্দীদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের যৌন আক্রমণের খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তারা বলেন, 'অন্তত দুই নারী ফিলিস্তিনি বন্দীকে ধর্ষণ করার খবর পাওয়া গেছে এবং অন্যদেরকে ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতার হুমকি দেয়া হয়েছে।' তারা বলেন, ইসরাইলি সৈন্যরা 'অমর্যাদাজনক পরিস্থিতিতে' নারী বন্দীদের ছবি তুলে তা অনলাইনে আপলোড করে।

তারা আরো উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন যে গাজায় ইসরাইলি সেনাবাহিনীর সংস্পর্শে আশার পর 'অজ্ঞাত সংখ্যক ফিলিস্তিনি নারী ও শিশু ও মেয়ে' নিখোঁজ হয়ে গেছে। তারা বলেন, 'এমন উদ্বেগজনক খবরও আছে যে অন্তত একটি ক্ষেত্রে এক সদ্যজাত মেয়ে শিশুকে ইসরাইলি সেনাবাহিনী ইসরাইলে সরিয়ে নিয়েছিল, এবং শিশুদেরকে তাদের মা-বাবার কাছ থেকে সরিয়ে নেয়ার পর তাদের অবস্থান এখনো অজ্ঞাত রয়ে গেছে।'

বিশেষজ্ঞরা বলেন, 'ফিলিস্তিন নারী ও মেয়েদের জীবন, নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য ও মর্যাদা সমুন্নত রাখা এবং যৌন নির্যাতনসহ সহিংসতা, নির্যাতন, অসদাচরণ বা অমর্যাদাজনক আচরণের শিকার যাতে কেউ না হয় সে ব্যাপারে ইসরাইলি সরকারের বাধ্যবাধকতার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি।' বিশেষজ্ঞরা এসব অভিযোগের ব্যাপারে স্বতন্ত্র, নিরপেক্ষ, তাৎক্ষণিক, পূর্ণাঙ্গ ও কার্যকর তদন্ত করার এবং ইসরাইলকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।


আরও খবর

ভেনেজুয়েলায় সোনার খনি ধসে নিহত ২৩ জন

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ফখরুল-খসরুর জামিন শুনানি ১৪ ফেব্রুয়ারি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় করা রমনা মডেল থানার মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর জামিন আবেদন শুনানির জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামানের আদালতে জামিনের আবেদন করেন তাদের আইনজীবী সৈয়দ জয়নাল আবেদীন মেজবাহ।

তিনি বলেন, এর আগে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলায় তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে আমরা মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিনের আবেদন করেছি। এই এক মামলায় জামিন পেলে কারামুক্ত হতে পারবেন তারা বলে জানান এই আইনজীবী।

জানা যায়, গত বছরের ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ শুরুর আগে প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে গাছের ডাল ভেঙে ও হাতের লাঠি দিয়ে নামফলক, গেটে হামলা চালানো হয়। অভিযুক্তরা ভেতরে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন। এ ঘটনায় মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির ৫৯ নেতার বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা করা হয়।

গত ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে মির্জা ফখরুলকে আটক করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আর ২ নভেম্বর দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে আমীর খসরুকে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরদিন ৩ নভেম্বর তার ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। ৯ নভেম্বর রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর থেকে তিনিও কারাগারে রয়েছেন


আরও খবর



আমাকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়: নোরা ফাতেহি

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৭জন দেখেছেন

Image

আলোচনার ঝড় তুলেছে পরিচালক আদিত্য দত্তর পরবর্তী সিনেমা ‘ক্র্যাক’। মুম্বাইয়ের বস্তি থেকে আন্ডারগ্রাউন্ড এক্সট্রিম স্পোর্টস জগতে একজন মানুষের যাত্রার গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে সিনেমাটি। যেখানে অভিনয় করেছেন— অর্জুন রাম পাল, বিদ্যুৎ জামাল ও নোরা ফাতেহি।

আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে ‘ক্র্যাক’ সিনেমা। কয়েকদিন আগে সিনেমাটির ট্রেইলার মুক্তি পেয়েছে। পুরো ট্রেইলার জুড়ে ধুন্ধুমার অ্যাকশন আর রোমান্সে ভরপুর, যা দেখে ভূয়সী প্রশংসা করছেন নেটিজেনরা।

এদিকে, সিনেমাটির শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন নোরা ফাতেহি। স্টান্ট ডাবল ছাড়াই শুটিং করেন তিনি। এ বিষয়ে নোরা ফাতেহি বলেন, ‘অর্জুন (অর্জুন রামপাল) স্যার স্টান্ট করছিলেন, বিদ্যুৎ (বিদ্যুৎ জামাল) স্যারও স্টান্ট করছিলেন, তাই আমিও ডাবল ছাড়াই স্টান্ট করতে চাই। বিদ্যুতের সঙ্গে যখন একটি দৃশ্যের শুটিং করছিলাম, তখন আমরা দু'জনেই খুব দ্রুত যাচ্ছিলাম। হঠাৎ আমি পড়ে যাই। অন্যদিকে, আগের গতিতেই যাচ্ছিলেন বিদ্যুৎ। দড়িটি বিদ্যুতের কোমরে বাঁধা ছিল, আমি তার পেছনে ছিলাম। সে বুঝতে পারেনি আমি পড়ে গেছি, ফলে বিদ্যুৎ আমাকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়, তাও কংক্রিটের রাস্তা দিয়ে।’

‘ক্র্যাক’ সিনেমায় বিদ্যুৎ জামালের বিপরীতে অভিনয় করেছেন নোরা ফাতেহি।  সিনেমাটির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অ্যামি জ্যাকসন। তা ছাড়া বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে ভারতীয় বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী রুক্মিনী মৈত্রকে।


আরও খবর

যে কারণে টাকা ফিরিয়ে দিলেন জয়া

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ঈধিকার পর এবার মিমি

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24




আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪জন দেখেছেন

Image

২০২৫ সালের উচ্চ মাধ্যমিক বা এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। রোববার ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মো. আবুল বাশার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা এনসিটিবি প্রণীত ২০২৩ সালের পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর

চবি ছাত্রলীগে ফের উত্তেজনা

সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪