Logo
আজঃ শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

মহাসড়ক ফাঁকা, আছে বিজিবির টহল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ অক্টোবর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৪জন দেখেছেন

Image

দেশব্যাপী ৭২ ঘণ্টার অবরোধকে ঘিরে নারায়ণগঞ্জে ঢাকা- সিলেট, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক মঙ্গলবার সকাল থেকেই ফাঁকা রয়েছে।

সকালে মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। সকাল থেকে মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে অবরোধকারীরা মিছিল ও পিকেটিং করছে।

এদিকে অবরোধে যেন কোনো ধরনের নাশকতা না হয় সেজন্যই সকাল থেকেই বিজিবি, পুলিশ ও র‍্যাবের টহল অব্যাহত রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (টিআই) শরফুদ্দিন জানান, সকাল থেকে যানবাহনের সংখ্যা কম রয়েছে। মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে বাড়তি নিরাপত্তাও আছে।


আরও খবর



আর্জেন্টিনা ব্রাজিলকে কাঁদিয়ে অলিম্পিকের টিকিট কাটল

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৭জন দেখেছেন

Image

দেয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের। প্রায় সাড়ে পাঁচ মাস পর ফ্রান্সের প্যারিস অলিম্পিকসের ফুটবল ইভেন্টে খেলতে বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে জয়ের বিকল্প ছিল না তাদের। বাঁচা-মরার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২৩ দল। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের ১-০ গোলে হারিয়ে অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করে হাভিয়ের মাসচেরানোর দল।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত আড়াইটায় ভেনেজুয়েলার এস্তাদিও ব্রিদিগো ইরিয়ার্তে স্টেডিয়ামে ব্রাজিলকে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। আগামী ২৬ জুলাই ফ্রান্সের প্যারিসে শুরু হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞ। সেখানে ১৬ দল নিয়ে হবে ফুটবল ইভেন্ট। এরই মধ্যে অলিম্পিকে খেলার টিকিট পেয়ে গেছে ১০টি দল।

লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্ব পেরিয়ে অলিম্পিকে খেলবে দুটি দল। সেই সুযোগ পাওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নেমেছিল ১০টি দল। মূল পর্বে ওঠার লড়াইয়ে টিকে যায় চারটি দল। এর মধ্যে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে প্যারাগুয়ে।

দুইয়ে ছিল ব্রাজিল। তাদের পয়েন্ট ছিল ৩। ব্রাজিলের সামনে ছিল সহজ সমীকরণ। বাছাই পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে প্যারাগুয়ের কাছে ১-০ ব্যবধানে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ভেনেজুয়েলাকে ২-১ গোলে হারিয়ে অলিম্পিকে এক পা দিয়েই রেখেছিল নেইমার-ভিনিসিয়ুসদের উত্তরসূরীরা। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কেবল ড্র করলেই নিশ্চিত হতো অলিম্পিকের টিকিট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে।

অন্যদিকে প্রথম দুই ম্যাচে ড্র করে চরম বিপাকে পড়েছিল আলবিসেলেস্তেরা। প্রথম ম্যাচে ভেনেজুয়েলার সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র এর পর দ্বিতীয় ম্যাচে প্যারাগুয়ের সঙ্গে ৩-৩ গোলে ড্র করে আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দল। তাই শেষ ম্যাচটি ছিল তাদের বাঁচা-মরার। সেই লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত উতরে যায় দলটি।

শুরু থেকেই দুই দলের আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। কিন্তু প্রথমার্ধে সফলতা পায় না কেউই। দ্বিতীয়ার্ধে ৭৮ মিনিটে দলকে জয় সূচক গোল উপহার দেন আর্জেন্টিনার লুসিয়ানো গন্ডু। তার একমাত্র গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আলবিসেলেস্তেরা।

দ্বিতীয় দল হিসেবে অলিম্পিকের টিকিট প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে প্যারাগুয়ের। দুই ম্যাচ খেলে তাদের পয়েন্ট এখন ৪। প্রতিপক্ষ ভেনেজুয়েলার দুই ম্যাচে পয়েন্ট এক। প্যারাগুয়ে ড্র করলেই অফিসিয়ালি নিশ্চিত অলিম্পিক। কিন্তু ব্রাজিলের মতো হেরে বসলে সুযোগ পেয়ে যাবে ভেনেজুয়েলা।


আরও খবর

আইপিএল শুরুর তারিখ নির্ধারণ

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বসছে এআই প্রযুক্তির ১ হাজার ৪২৭ ক্যামেরা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image
হাইওয়ে পুলিশের প্রধান ও অতিরিক্ত আইজিপি মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেছেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক আধুনিক প্রযুক্তির আওতায় আনা হচ্ছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ৪৯০টি জায়গায় ১ হাজার ৪২৭টি ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে। আগামী দুয়েক মাসের মধ্যে এই কাজ শেষে হবে। এই ক্যামেরাগুলোতে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) রয়েছে এবং একটি নেটওয়ার্কের আওতায় এগুলো পরিচালিত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করতে পারেন বলে তিনি জানান।

গতকাল বুধবার উত্তরায় হাইওয়ে পুলিশের সদরদপ্তরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) নবনির্বাচিত কমিটির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এ কথা বলেন। সাক্ষাতে হাইওয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং ক্র্যাবের সভাপতি কামরুজ্জামান খান ও সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলামসহ সংগঠনটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় মো. কামরুজ্জামান খান ক্র্যাব সদস্যদের নানাদিক তুলে ধরেন এবং সামনের কর্মপরিকল্পনার বিষয় নিয়ে হাইওয়ে প্রধানের সঙ্গে আলোচনা করেন।

শাহাবুদ্দিন খান বলেন, মহাসড়ক এআই ক্যামেরার আওতায় এলে ভালো পুলিশিংয়ের পাশাপাশি মহাসড়কও নিরাপদ হবে। হাইওয়ে পুলিশের জনবল ঘাটতি রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ৩৬টি হাইওয়ে থানা ও ৩৭টি ফাঁড়ি অর্থাৎ মোট ৭৩টি থানাও ফাঁড়ি রয়েছে। আর জনবল রয়েছে ২ হাজার ৮৬১ জন। আরও ৭ হাজার জনবল চেয়ে প্রস্তাব করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আরও প্রায় সমানসংখ্যক (৭৩) হাইওয়ে থানা বা ফাঁড়ি গঠনের চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছে।

আরও খবর



গ্রিসে ফাগুন উৎসবে মেতে উঠেন বাঙালি নারীরা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৮জন দেখেছেন

Image

শীতের শেষে বসন্তের আগমনে নানা রঙের ফুলে-ফলে প্রকৃতি সাজে নতুন রূপে। এই বুঝি এলো বসন্ত। প্রকৃতির পাশাপাশি ফাগুনের রঙ লেগেছে সবার মনে। কবির ভাষায় পহেলা ফাল্গুন ‘ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক আজ বসন্ত’। প্রাচীনকাল থেকেই বাঙালি বসন্ত উৎসব পালন করে আসছে। ঋতুরাজ বসন্তকে বরণ করে নেওয়ার রীতি বেশ পুরাতন। 

বাঙালির সংস্কৃতিকে ধরে রাখতে গ্রিসে বসবাসরত বাংলাদেশি নারীদের আয়োজনে এবার যেন লেগেছিলো বাংলাদেশের ফাগুন হাওয়া। পহেলা ফাল্গুনে নারী উদ্যোক্তা নীলা রহমানের বাসায় ফাগুন উৎসবে মেতেছিলো প্রবাসী নারীরা। হলদে বরণ সাজ আর স্বত:স্ফূর্ত উপস্থিতিতে দূর প্রবাসেও যেন ভেসে উঠেছে এক টুকরো বাংলাদেশ।  এ যেন বিশ্বকবির ‘আজি দখিন-দুয়ার খোলা, এসো হে, এসো হে, এসো হে আমার বসন্ত এসো’ আহ্বান।  গ্রিসে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নারীরা রঙ বেরঙের শাড়িতে বাসন্তী সাজে বসন্ত বরণ উৎসবে সামিল হন।

বসন্ত উৎসবে নারী নেত্রী নীলা রহমানের বাসায় সকল নারীদের অংশগ্রহণে পিলো পাস খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় অংশ নেন নারী উদ্যোক্তা শেখ শাহীন আক্তার, শেলী রহমান, দীনা উম্মে হাবিবা, ইভা হক, মাহবুবা আক্তার, মিলি রহমান, রেশমি আক্তার, শান্তা ইসলাম, আরজুদা রহমান, মুক্তা আক্তার, সোনিয়া খানম, শিল্পী আক্তার, আফসানা লডি, মর্জিনা আক্তার, রুবিনা আক্তার, ঋুমু রহমান, মিসেস মিজান, রুমি মন্ডল, নাছিমা সরকার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মিস ফাল্গুন সুন্দরী নির্বাচিত হন শেলী রহমান। পিলো পাস খেলাতে ১ম পুরস্কার অর্জন করেন ইভা হক, ২য় পুরষ্কার অর্জন করেন মর্জিনা আক্তার এবং ৩য় পুরষ্কার পান উদ্যোক্তা শেখ শাহিন আক্তার।


আরও খবর

ভাষা শহীদদের প্রতি মালয়েশিয়ায় শ্রদ্ধা

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সৈয়দপুর বিমানবন্দরে আগুনের রহস্য দশ দিনেও উদ্ঘাটন হয়নি

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৪জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: সৈয়দপুর বিমানবন্দর রানওয়ের ঘাসবনে রহস্য জনক আগুনে পুড়ে গেছে ৫০ হাজার বর্গমিটার এলাকা। এমনকি আগুন থেকে রক্ষা পায়নি বিদ্যুৎ লাইনের ৩০০ মিটার মূল্যবান ক্যাবল (তার)। গত ১ ফেব্রুয়ারি সকালে এ আগুনের ঘটনা ঘটলেও দশ দিন পেরিয়েও উদ্ঘাটন হয়নি রহস্য, গঠন করা হয়নি কোনো তদন্ত কমিটি। অভিযোগ উঠেছে, ঘটনা ধামাচাপা দিতে চলছে নানা ফন্দিফিকির। 

দেশের ব্যস্ততম অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরে এমন ঘটনায় বিস্মিত হয়েছে সংশ্লিষ্টরা। বিমানবন্দর রানওয়ে এলাকা সংরক্ষিত হওয়ায় সাধারণের নজর এড়িয়ে যায় দুর্ঘটনাস্থল। কিন্তু বিমানবন্দরে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ পাশের মার্কেটের ব্যবসায়ীরাদের আলোচনায় চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে  জানতে পারেন মিডিয়া কর্মীরাও। 

আগুনের ঘটনার বিষয় নিয়ে কথা হয় বিমানবন্দরের একাধিক কর্মচারীর সঙ্গে। তারা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বিমানবন্দর রানওয়ের ঘাসবনের ঘাস পরিষ্কার করার জন্য ইতোমধ্যে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ ঘাস কাটার জন্য ঠিকাদারও নিযুক্ত করেছে। এ জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১০ লাখ টাকা। 

কিন্তু এ কাজটি সম্পন্ন করার জন্য বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক সুপ্লোব কুমার ঘোষ নিয়ম ভেঙে নিজে সাব কন্টাক্ট নেন। তিনি ঘাস না কেটেই চুক্তির টাকা আত্মসাৎ করতে ঘাসবনে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ঘাস পরিষ্কারের উদ্যোগ নেন। বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক তার বিশ্বস্ত কর্মচারী দিয়ে ঘাসে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেন। 

এতে এক ঘণ্টার ব্যবধানে রানওয়ের ৫০ হাজার বর্গ মিটার এলাকার ঘাস পুড়ে যায়। একইসাথে বিদ্যুতের ৩০০ মিটার মূল্যবান ক্যাবল (তার) আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এমন অবস্থায় আগুনের তীব্রতা বৃদ্ধি পেলে বিমানবন্দরে কর্মরত ফায়ার ফাইটাররা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এর ফলে বিমানবন্দর চত্বরের অন্যান্য মূল্যবান সম্পদ রক্ষা পায়। 

এদিকে বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক সুপ্লোব কুমার ঘোষ বাগান করার নামেও সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা বরাদ্দ নিয়ে পুরো টাকাটাই পকেটস্থ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এছাড়া ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রয়েছে কালোবাজারে জ্বালানি তেল বিক্রির অভিযোগ। বিমানবন্দর রানওয়ে সার্বক্ষণিক নজরে রাখার জন্য দুটি গাড়ি আছে। এর মধ্যে একটি গাড়ি সবসময় অচল পড়ে থাকে। কিন্তু ওই ব্যবস্থাপক দুটি গাড়ির বিপরীতে জ্বালানি কিনেন।

অথচ জ্বালানি ব্যবহার হয় একটি গাড়িতে। অন্য গাড়ির নামে বরাদ্দকৃত তেলের পুরোটাই তিনি কালোবাজারে বিক্রি করে টাকা হাতিয়ে নেন। হাতিয়ে নেয়া টাকার পরিমাণ বছরে কমপক্ষে পাঁচ লাখ টাকা বলে দপ্তরের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়।

দপ্তরে কর্মরত ব্যক্তিদের দেয়া তথ্য মতে, বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক তার অপকর্ম ঢাকতে সব সময় অধস্তনদের সঙ্গে চাকরি বিধি লঙ্ঘন করে দুর্ব্যবহার করেন। তারপরেও কেউ কোনোভাবে তার কথার প্রতিউত্তর করলে তিনি বদলির হুমকি দেন। 

এমন পরিস্থিতিতে বিমানবন্দর ব্যবস্থাপকের অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ টু শব্দটি করার সাহস পায় না। ফলে দিন দিন ব্যবস্থাপকের অনিয়ম- দুর্নীতির মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। অভিযোগ বিষয়ে জানতে মোবাইল ফোনে কথা হয় বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক সুপ্লোব কুমার ঘোষের সঙ্গে।

তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তবে যা কিছু লিখবেন জেনে-বুঝে-শুনে লিখলে সুবিধা হবে। তাঁর কথার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য সংবাদকর্মীরা বিমানবন্দর রানওয়ে পরিদর্শন করতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। এমতাবস্থায় বিস্তারিত জানতে চাইলে আমি এখন অনেক ব্যস্ত, পরে কথা বলা যাবে বলে এড়িয়ে যান এবং সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন।


আরও খবর



পিডিআই কানাডার সম্মেলনে প্রবাসীদের দেশের স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৭জন দেখেছেন

Image

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দুর্নীতিমুক্ত, বৈষম্যহীন ও গণতান্ত্রিক বাংলাদেশের দাবিতে টরন্টোতে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক উদ্যোগ (পিডিআই) কানাডার প্রথম সম্মেলন।

আজফার সাঈদ ফেরদৌসকে সভাপতি ও সাবেক ছাত্রনেতা মনির জামান রাজুকে সাধারণ সম্পাদক এবং নাট্যকর্মী রোমান চৌধুরীকে কোষাধ্যক্ষ করে ২৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি নির্বাচিত করা হয়েছে।

সম্মেলনের শুরুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন সোলায়মান তালুত রবিন। সম্মেলনের প্রথম পর্বে ছিল কাউন্সিল অধিবেশন ও দ্বিতীয় পর্বে উন্মুক্ত অধিবেশন। কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন আজিজুল মালিক এবং পরিচালনায় ছিলেন মনির জামান রাজু। উন্মুক্ত অধিবেশন পর্বে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যুৎরঞ্জন দে এবং পরিচালনায় ছিলেন মাহবুব আলম।

সম্মেলনে বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মাশুক মিয়া, ডাকসুর সাবেক এজিএস নাসির উদ দুজা, সাবেক ছাত্রনেতা সৌমেন সাহা, উদীচী কানাডা সংসদের সাধারণ সম্পাদক মিনারা বেগম, লেখিকা ও অনুবাদক ফারহানা আজিম শিউলী, টরন্টো বাঙালি কমিউনিটির সক্রিয় কর্মী শিবু চৌধুরী, টরন্টো ফিল্ম ফোরাম সভাপতি এনায়েত করিম বাবুল, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সফিউদ্দিন আহমেদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজমুল হোসেন মনা।

সম্মেলন শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সূচনা সংগীত হিসেবে গান পরিবেশন করেন বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী শাহজাহান কামাল। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী কানাডা গণসংগীত পরিবেশন করে। কবিতা আবৃত্তি করেন আবৃত্তিশিল্পী শেখর গোমেজ, রেজা অনিরুদ্ধ ও রওশন জাহান উর্মি।


আরও খবর

ভাষা শহীদদের প্রতি মালয়েশিয়ায় শ্রদ্ধা

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪